পরিচালকের কথা 


স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়ন আন্দোলনে সাইক ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি ২০০৫ সাল থেকে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। “তৈরী করব স্বাস্থ্যকর্মী দক্ষ, সেবাই আমাদের অন্যতম লক্ষ্য” এই স্লোগনকে সামনে রেখে স্বাস্থ্যসেবা ও চিকিৎসার গুনগত মানকে আরো একধাপ এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সাইক গ্রুপ পরিচালিত প্রতিষ্ঠান সমূহ শিক্ষার মানকে অক্ষুন্ন রেখে হেলথ, এলাইড জনবল বৃদ্ধির লক্ষ্যে মানসম্মত ইনস্টিটিউট খোলার সিদ্ধান্ত নেয় এবং ইতি মধ্যে বিভিন্ন হেলথ এলাইড কোর্স চালু করেছে।

এ উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্যসেবায় নিবেদিত হবে এমন পেশাগত জনশক্তি তৈরী করতে সাইক গ্রুপ, ঢাকায় সাইক ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি, এসআইএমটি মেডিকেল এ্যাসিস্ট্যান্ট ট্রেইনিং স্কুল, সাইক নার্সিং কলেজ এবং হামিদা নার্সিং ইন্সটিটিউট প্রতিষ্ঠা করেছি। 

এ সকল মেডিকেল প্রতিষ্ঠানে  আধুনিক শিক্ষার সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা ও গুনগত মান বজায় রেখে স্বল্প খরচে শিক্ষা গ্রহনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এক্ষেত্রে মেডিকেল টেকনোলজি কোর্স সমূহকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যথাযথ রোগ নির্ণয়ের স্বার্থে বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা-নিরিক্ষা খুবই জরুরী। তাই এক্ষেত্রে দক্ষ টেকনোলজিস্টও খুবই প্রয়োজন।

সাইক ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি দক্ষ ফিজিওথেরাপিষ্ট, মেডিকেল টেকনোলজিস্ট, নার্স ও মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট তৈরীর লক্ষ্যে অভিজ্ঞ শিক্ষক মন্ডলী, সুপরিসর ক্যাম্পাস, সর্বোচ্চ ব্যবহারিক ক্লাস, সরকারি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ইন্টার্ণশিপ-এর ব্যবস্থাসহ এমনকি সাইন্টিফিক সেশনেরও ব্যবস্থা করে থাকে,  যা অন্য কোন সরকারি বা বেসরকারি ইনস্টিটিউটে হয় না।

এখান থেকে কৃতকার্য শিক্ষার্থীরা দেশের নাম করা ডায়াগনষ্টিক ল্যাব, ফিজিওথেরাপি সেন্টার এবং হাসপাতালে (স্কয়ার, ল্যাব এইড,  ইউনাইটেড ইত্যাদি) উচ্চ বেতনে চাকরি করছে। এর ধারাবাহিকতা রক্ষা করে আমি আমার সাধ্যমত সাইক ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি-কে আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিতে চেষ্টা করে যাচ্ছি।

(আবু হাসনাত মোঃ ইয়াহিয়া)
পরিচালক
সাইক ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল টেকনোলজি

TOP